উপনির্বাচনে জয়ী, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পথে আনোয়ার


আনোয়ার ইব্রাহিমমালয়েশিয়ায় উপনির্বাচনে জয় পেয়েছেন আনোয়ার ইব্রাহিম। আজ শনিবার দেশটির পোর্ট ডিকসন সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী হন তিনি।

কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর এই প্রথমবারের মতো বড় ধরনের কোনো পরীক্ষার মুখোমুখি হন মালয়েশিয়ার ক্ষমতাসীন জোটের নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম। এটি তার জন্য একটি পরীক্ষা ছিল। শনিবার পোর্ট ডিকসন সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী হয়ে তিনি সেই পরীক্ষা উতরে গেছেন।

এতে জয়ের ফলে প্রতিশ্রুতি অনুসারে দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার পথ প্রস্তুত হবে এবং দেশটির মূলধারার রাজনীতিতে শুরু হবে আনোয়ার ইব্রাহিমের যুগ।

গত মে মাসের নির্বাচনে এই আসনে ক্ষমতাসীন জোটের প্রার্থী ১৭ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন। মূলত আনোয়ার ইব্রাহিমকে পার্লামেন্টে যাওয়ার সুযোগ করে দিতেই তিনি পদত্যাগ করেন। সেই পোর্ট ডিকসন সংসদীয় আসনে শনিবারের উপনির্বাচনে জয়ী হলেন আনোয়ার ইব্রাহিম।

এ বছরের মে মাসে দেশটির একাদশ নির্বাচনে পাকাতান হারাপান জোট ক্ষমতায় আসে। এতে ৬১ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা বারিসন ন্যাশনাল জোট ক্ষমতাচ্যুত হয়। এক সময়ের বারিসন জোটের প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ এবারে পাকাতান জোটের হয়ে জয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। নির্বাচনে তার প্রতিশ্রুতি ছিল, এক সময় তার সরকারের ভাইস প্রেসিডেন্ট আনোয়ার ইব্রাহীমকে কারাগার থেকে মুক্ত করা এবং প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসানো। প্রতিশ্রুতি মোতাবেক সেপথেই হাঁটছেন মাহাথির মোহাম্মদ।

২০১৫ সালে সমকামিতা ও দুর্নীতির অভিযোগে ৭০ বছর বয়সী আনোয়ার ইব্রাহিমকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। তবে তাঁর দাবি, রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে ধ্বংস করার জন্যই তাঁকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই আনোয়ার ইব্রাহিমের মুক্তির জন্য সুপারিশ করেন মাহাথির। মে মাসেই আনোয়ার ইব্রাহিম রাজক্ষমা লাভ করেন। এরপরেই মুক্তি মেলে তাঁর। আনোয়ার ইব্রাহিম কুয়ালালামপুরের চেরাস রিহ্যাবিলিটেশন হসপিটালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তথ্যসূত্র: এএফপি ও আল জাজিরা।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *