খালেদাকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার আওয়াজ আমলে নিচ্ছে না আ. লীগ


বেগম খালেদা জিয়া (ফাইল ফটো)কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে না বলে দলটির আওয়াজকে আমলে নিচ্ছে না ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা বলছেন ‘খালেদাকে ছাড়াই বিএনপি নির্বাচনে আসবে। বিএনপির চেয়ারপারসনকে ছাড়া দলটি নির্বাচনে যাবে না বলে নেতারা যে আওয়াজ দিয়েছে তা মূলত সরকারের ওপর খানিকটা চাপ সৃষ্টি করার জন্য।’
আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, ‘বিএনপিকে নির্বাচনে নিয়ে আসা ও নির্বাচনি মাঠে সুযোগ তৈরি করে দেওয়ার জন্যে সরকারের উদ্যোগ আশা করে এই আওয়াজ তুলেছে বিএনপি। সরকার পতন এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনের হাল ছেড়ে দিয়েছে বিএনপি। তারা এখন শক্ত হাতে নির্বাচনের হাল ধরেছে। খালেদাকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার যে আওয়াজ তারা তুলেছে সেটা রাজনীতিতে টিকে থাকার জন্যে। নির্বাচনে যাওয়া ছাড়া তাদের কাছে আর কোনও পথ নেই। বিএনপি নির্বাচনের প্রস্তুতিই নিচ্ছে।’
ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের দাবি, সরকারের সঙ্গে কোনও সমঝোতা ছাড়াই নির্বাচনে আসতে হবে বিএনপিকে। ফলে বিএনপির এই বক্তব্যকে একেবারেই আমলে নিচ্ছে না ক্ষমতাসীনরা। আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারক পর্যায়ের নেতারা বলছেন, বিএনপি কখনও আন্দোলনের কথা বলে, কখনও খালেদা জিয়ার মুক্তির কথা বলে সরকারের কাছে থেকে আলোচনার প্রস্তাব পেতে চায়। কিন্তু ক্ষমতাসীনরা সেই মুডে নেই বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের কয়েকজন নেতা।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্যাহ বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে আসার জন্যে আওয়ামী লীগের কাছে কোনও বিষয়ে গোঁ ধরে বিএনপির লাভ হবে না। বিএনপিকে ছাড় দিয়ে নির্বাচনে নিয়ে আসার কোনও ইচ্ছা আওয়ামী লীগের নেই। সুতরাং আওয়ামী লীগের কাছে বিএনপির কিছু আশা, নিরাশাই রয়ে যাবে।’
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে যাবে কি যাবে না এটা তাদের ব্যাপার। কিন্তু আমরা মনে করি খালেদা জিয়া কোথায় থাকলো, না থাকলো সেটা না ভেবেই তারা আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে। বিএনপিতে নির্বাচনের প্রস্তুতি পুরোদমেই রয়েছে।’
আওয়ামী লীগের অপর সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘খালেদা জিয়া মুক্ত না হলেও বিএনপি নির্বাচনে যাবে। তাকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার আওয়াজ তুলে বিএনপি মূলত রাজনীতিতে টিকে থাকার চেষ্টা করছে।’ তিনি বলেন, এই একটা মাত্র ইস্যু ছাড়া বিএনপির আর কথা বলার কোনও জায়গা নেই। ফলে তারা খালেদাকে ছাড়া নির্বাচনে যাওয়ার আওয়াজটি তুলেছে।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি আসবে না- সেই মাথা ব্যথা আওয়ামী লীগে নেই। তাদের রাজনৈতিক লাভ-ক্ষতি হিসেব করে নিশ্চয়ই তারা সিদ্ধান্ত নেবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য আছে খালেদা জিয়া মুক্ত না হলেও বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে।’
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার আওয়াজ বিএনপির প্রকৃত অবস্থান নয়। তারা আন্দোলনের হাল ছেড়ে দিয়েছে। তারা শক্ত হাতে নির্বাচনের হাল ধরেছে। খালেদা জিয়া মুক্ত না হলেও বিএনপি নির্বাচন করবে এটাই সত্য।’
প্রসঙ্গত, দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেবে না বলে এর আগে একাধিকবার ঘোষণা দিয়েছেন দলটির সিনিয়র নেতারা।

আরও পড়ুন: ‘খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোনও নির্বাচন নয়’





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *