ডোমারে দুই দিনে তিন নারীর অপমৃত্যু…-702260 | কালের কণ্ঠ


নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় দুই দিনে তিন নারীর অপমৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলার বোড়াগাড়ি ইউনিয়নের পূর্ব বোড়াগাড়ি গ্রামের খোরশেদ আলমের স্ত্রী আসমা বেগমের (২৫) নিজ শয়নকক্ষ থেকে গলায় দড়ি দেওয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্ত্রীকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখার সন্দেহে স্বামী খোরশেদ আলমকে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে দেয়। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় পুলিশ। 

অপরদিকে গত শুক্রবার দুপুরে একই ইউনিয়নের বাগডোকরা গ্রামের প্রমোথ চন্দ্র রায়ের স্ত্রী অনিতা রানীর (২৫) গলায় দড়ি দেওয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিকেলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। একই দিন (শুক্রবার) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার জোড়াবাড়ি ইউনিয়নের বেতগাড়া গ্রামের আমিজ উদ্দিনের মেয়ে হলহলিয়া আদর্শ বিদ্যানিকেতনের নবম শ্রেণির ছাত্রী শাহানা আক্তার গলায় ওড়না পেচিয়ে শয়ন কক্ষে আত্মহত্যা করে। তার পারিবারিক সূত্র জানায় তাকে গাইড বই কিনে না দেয়ায় অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে। কোনো অভিযোগ না থাকায় রাতেই পুলিশ তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। শনিবার সকালে তার দাফন সম্পন্ন হয়। 

ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোকছেদ আলী জানান, আসমা বেগম ও অনিতা রানীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। আসমা বেগমকে হত্যা সন্দেহে তার স্বামী খোরশেদ আলমকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার বিষয়টির কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফন করার জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *