দেখে নিন অদ্ভুত আকৃতির ১০ টি কম্পিউটার, যেগুলো আপনি জীবনেও দেখেন নি


কম্পিউটার তো এখন আমাদের জীবনের সাথে মিশে গেছে। কম্পিউটার ছাড়া একটা দিনও চলে না। তবে আমরা একই আকৃতির কম্পিউটার দেখে অভ্যস্ত। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম কিছু অদ্ভুত আকৃতির কম্পিউটার যেগুলো আবার কাজেও বেশ উপকারী।
তাহলে শুরু করা যাক—

১০. ফিলকো পিসি
১৯৫৪ সালের পুরনো ডিজাইন কনসেপ্ট দিয়ে তৈরি এই কম্পিউটার আগেকার দিনের কথা মনে করিয়ে দেবে। তবে কনসেপ্ট পুরনো হলেও বেশ একটা স্টাইলিশ ভাব আনা হয়েছে। এটি উইন্ডোজ সেভেন অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে চলে।

০৯. এইচপি লীম
ল্যাপটপের আকৃতিতে তৈরি এই কম্পিউটারটিকে প্রথম দর্শনে কম্পিউটার নাও মনে হতে পারে। কারণ এতে রয়েছে ১৯ ইঞ্চি ওএলইডি স্ক্রিন এবং ওয়ারলেস কীবোর্ড। মনিটর পুরোপুরি স্পর্শ কাতর এবং এতে নেই কোনো মাউস ট্রাকপ্যাড, যে কারণে যে কোনো যায়গাতেই হাত ঘুরিয়ে ট্রাকপ্যাড এর কাজ চালিয়ে নেয়া যাবে।

০৮. ন্যাপকিন পিসি
খাতার মতো দেখতে এই কম্পিউটার ডিজাইন করা হয়েছে একসাথে অনেক মানুষের কাজ করার জন্য। যখন এই গ্রুপের কোন একজন একটি কম্পিউটারে কোন ছবি বা নকশা আসবে তখন সেই নকশা তৎক্ষণাৎ গ্রুপের অন্যান্য সদস্যদের কাছে চলে যাবে।

০৭. বই কম্পিউটার
ল্যাপটপ দেখতে অনেকটা বইয়ের মতো। তবে অবশেষে পাওয়া গেলো সেই কম্পিউটার যেটা আক্ষরিক অর্থেই বইয়ের মত। একটি সাধারন বইয়ের ভিতর স্থাপন করা হয়েছে মনিটর এবং কীবোর্ড যা আবার পরবর্তীতে সরিয়ে নেওয়া যায। বইয়ের ঝাপ বন্ধ করলে এটি সাধারণ বইয়ের মতোই লাগে। পেতে রয়েছে ডিভিডি ড্রাইভ। যা দিয়ে যে কোন অপারেটিং সিস্টেম চালানো যায়।

০৬. বী মেমব্রেন কম্পিউটার
দেখতে ফানেলের মত এই কম্পিউটারের নেই কোন মনিটর। আছে একটি প্রজেক্টর, সিপিইউ এবং কিবোর্ড। এর ডিজাইন অনেকটা ভবিষ্যতের সাথে মিলে যায। অনেক জনপ্রিয় না হলেও দেখতে বেশ অদ্ভুত।

০৫. হরিজন কম্পিউটার
অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এই ল্যাপটপের নেই কোনো দৃশ্যমান মনিটর। আছে দুটি বার যা থেকে লেজার রশ্মি
প্রতিফলিত হয়ে মনিটর এর কাজ করে। তারবিহীন কীবোর্ড কম্পিউটারটিকে বেশ স্টাইলিশ করে তুলেছে।

০৪. বুকশেলফ পিসি
দেখতে বইয়ের তাকের মত হলেও এই কম্পিউটারটিতে রয়েছে একটি পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার এর সবগুলো উপাদান। তবে কোন মনিটর এর ব্যবস্থা নেই। এর সাথে প্রজেক্টর যুক্ত করে কম্পিউটারের সব কাজই করা যাবে।

০৩. কাগজের ল্যাপটপ
এই কম্পিউটারটির পুরো বডিটাই নবায়নযোগ্য কাগজ দিয়ে তৈরি। তবে এর ভিতর ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি বসানো রয়েছে। তাই দেখতে কাগজের মত হলেও এটি পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার এর চাইতে কোন অংশে কম নয়।

০২. বহনযোগ্য থিয়েটার কম্পিউটার
মাইক্রোসফটের তৈরি এই অদ্ভুত আকৃতির এটার কম্পিউটারটি তৈরি করা হয়েছে শুধুমাত্র বিনোদনের উদ্দেশ্যে। এতে রয়েছে ডিভিডি রম এবং বিল্টইন প্রজেক্টর। যাতে আবার কম্পিউটারের সব কাজই করা যায়। যেহেতু মাইক্রোসফটের তৈরি তাই কোয়ালিটি নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই।

০১. প্রাইম ল্যাপটপ
সর্বাধুনিক প্রযুক্তির এই ল্যাপটপের ডিসপ্লেই এর মূল আকর্ষণ । মনিটরের দুই দিকে প্রায় সমানভাবে দৈর্ঘ্য বাড়িয়ে নেওয়া যায়। প্রথমে ১০ ইঞ্চি থাকলেও দুই দিকে প্রায় ১৬ ইঞ্চি করে দাও বাড়িয়ে নেওয়া যায, ফলে রেজুলেশন দাঁড়ায় ৩২:১০। যার ফলে জীবন্ত এবং এইচডি কোয়ালিটির ভিডিও দেখা ও গেম খেলা সম্ভব।

[পোস্ট টি একটি ইংরেজি সাইট থেকে অনুবাদ করা হয়েছে]

তো এই ছিল আজকের প্রযুক্তি। সামনে আরো আসছে। সাথে থাকুন এবং ভালো থাকুন





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *