পাইথন ১ – Trickbd.com


“Python is fast enough for our site and allows us to produce maintainable features in record times, with a minimum of developers,”
– Cuong Do, Software Architect, YouTube.com.

স্বাগতম!!!

গত পর্বে আমরা এরকম একটা কোড দেখেছিলাম যা ৮ এর নামতা প্রিন্ট (স্ক্রিনে দেখায়) করে।


এবার চলেন এর ব্যবচ্ছেদ করা যাক(!)
প্রতিটি লাইনে যা করা হয়েছেঃ

  1.  শেল (কমান্ড লাইন ইন্টারপ্রেটার) কে বলা হয়েছে এটা পাইথন ৩  এ লেখা প্রোগ্রাম।
  2.  এই লাইন ফাঁকা, কিছুই বলা হয়নি…
  3. পাইথনে sys নামে একটা মডিউল আছে সেটাকে ইম্পোর্ট করতে বলা হয়েছে।
  4.  ফাঁকা লাইন।
  5. main() নামে একটা ফাংশন ডিফাইন করা হয়েছে।
  6. একটা for লুপ চালানো হয়েছে, যা মোট দশবার চলবে।
  7. একটা ভ্যারিয়েবল ডিক্লেয়ার করা হয়েছে num নামে এবং এর মাণ ৮ দেয়া হয়েছে। (যেহেতু ৮ এর নামতা লিখব)
  8. নামতা’র প্রতিটা লাইন প্রিন্ট করতে বলা হয়েছে।
  9. প্রোগ্রামকে বন্ধ হতে বলা হয়েছে।
  10. ফাঁকা লাইন।
  11. এই লাইন এবং পরের লাইন আাপাতত না বুঝলেও চলবে (?) (বললেও এখন বুঝবেন না)

তারমানে একটা পাইথন প্রোগ্রামে অনেক কিছুই থাকে। আবার এতগুলো কোড না লিখেও কিন্তু আমরা এই কাজটা করতে পারতাম। সেক্ষেত্রে কোডটা হতোঃ

 

for i in range(1, 11): print('%d x %d = %d' % (8, i, i * i))

 

এমন ।।।

অনেক ছোট কোড তাই না ? 😀

তবে এই ছোট কোডটা আসলে পুরোপুরি স্ট্যান্ডার্ড মানে না (!) তাই এতো বড় কোড লিখা। 😛

আগের কোডটা নিয়েই আমরা তাহলে কাজ চালিয়ে যাই। 7-নম্বর লাইনে আমরা একটা ভ্যারিয়েবল ডিক্লেয়ার করেছিলাম। আচ্ছা এই ভ্যারিয়েবল কি?

মনে করা যাক আপনার কাছে ৪ টা মগ আছে। প্রথমটায় ‘চা’, দ্বিতীয়টায় ‘কফি’, তৃতীয়টায় ‘লেবুর শরবত’ আর সবশেষ চতুর্থটায় ‘আখের রস’। সবগুলো মগকে আপনি যথাক্রমে ১, ২, ৩, এবং ৪ নামে রাখলেন।

এখন আপনার ‘চা’, ‘কফি’, ‘লেবুর শরবত’ আর ‘আখের রস’ হচ্ছে ডাটা বা ভ্যালু যা আপনি মগে রাখছেন। তাহলে মগকে কি বলা যায়? মগটাকে আমরা বলব ভ্যারিয়েবল (!) মগকে আমরা ১, ২, ৩, ৪ এরকম নামে রেখেছিলাম সহজে চিনতে সেরকম ভ্যারিয়েবলকেও আমরা এমন বিভিন্ন নামে ডিক্লেয়ার করতে পারি। 😀

আবার মগে যেমন আলাদা আলাদা জিনিস(!) রাখা যায় তেমনি ভ্যারিয়েবলেও রাখা যায়। একটা ভ্যারিয়েবলে আপনি স্বাভাবিক নাম্বার, দশমিক ভগ্নাংশ, ক্যারেক্টার, স্ট্রিং এগুলো রাখতে পারবেন। (আরো বেশি কিছু রাখা যায় এর চেয়েও)

স্বাভাবিক সংখ্যা বা দশমিক সংখ্যা রাখা খুব সহজ। কেবল num = 112358 বা num = 3.141592 লিখলেই হয়। আর স্ট্রিং বা ক্যারেক্টার রাখতে name = 'T' বা name = 'Totul' লিখলে হয়ে যাবে। পার্থক্য কেবল প্রথমে ” ব্যাবহার করি নি আর স্ট্রিং এর ক্ষেত্রে ব্যাবহার করেছি।
ভ্যারিয়েবল অনেক সহজ তাই না!!! 😛

পরের পর্বে নতুন কিছু নিয়ে কথা হবে।

গ্রামীন একটা ধাঁধাঃ

  • এক ঘরে এক খাম, বল তার কি নাম? 😀





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *