রাস্পবেরি পাই দিয়ে আসলেই কি বিটকয়েন মাইন করা যায়? জেনে নিন বিটকয়েন কিভাবে কাজ করে | Techtunes


কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভালই আছেন। অনেকদিন পরে টেকটিউনসে লিখতে বসলাম। আজকে আমি এমন একটি বিসয় নিয়ে লিখব যা সম্পর্কে অনেকেরই মনে প্রশ্ন আছে। আর সেটি হল বিটকয়েন। বিটকয়েন সম্পর্কে আপনাদের অনেকেরই জানা। এবং অনকে বিটকয়েন নিয়ে রিতিমত পড়াশুনা করে ফেলেছেন। তাও বিটকয়েন এর অনেক বিসয়ই আপনার অজানা। আমি বিটকয়েন নিয়ে এর আগে একটি মেগা টিউন করেছিলাম সেটি পরতে এখানে ক্লিক করুন।

এবার আসি আসল কথায়। বিটকয়েন সম্পর্কে জানার পর অনেকের ইচ্ছা হয় জানতে যে বিটকয়েন কিভাবে তৈরি। যেহেতু বিটকয়েন এর কোন সেন্ট্রাল ব্যাংক নেই তাই বিটকয়েন আসলে মাইনিং এর মাদ্ধমে তৈরি হয়। এই মাইনিং কিন্তু মাটি খোঁড়াখুঁড়ি না। এতা হল ভার্চুয়াল কারেন্সি মাইনিং।

বিটকয়েন মাইনিং কি?

যে উপায়ে কম্পিউটার ব্যবহার করে নতুন বিটকয়েন তৈরি হয় তাকেই বিটকয়েন মাইনিং বলে। বিটকয়েন মাইনিং এর জন্য অত্যন্ত ক্ষমতাশালী কম্পিউটার বা সার্ভার ব্যবহার করা হয়। আপনি শুনলে অবাক হবেন যে একটি বিটকয়েন ট্রান্সেকশন করতে যে পরিমান বিদ্যুৎ লাগে তা দিয়ে আমাদের বাসার সব ইলেক্ট্রনিক যন্ত্র সারাদিন চালানো যাবে। আর ধিরে ধিরে এই বিদ্যুৎ খরচ এর পরিমান আরো বারবে। কারন বিটকয়েন মাইনিং করা ধিরে ধিরে আরো কথিন হয়ে পরছে।

অনেকেই নিজেদের কম্পিউটার দিয়ে বিটকয়েন মাইন করতে চান। যদি আপনার অনেক ক্ষমতাশালী আধুনিক কম্পিউটার থাকে তবে হয়ত আপনি সারা মাস কম্পিউটার দিনরাত ২৪ ঘণ্টা চালিয়ে খুব আল্প পরিমান বিটকয়েন মাইন করতে পারবেন। তবে সেটি গোনার বাইরে। তাই বুঝতেই পারছেন বিটকয়েন মাইনিং করার জন্য কি পরিমান কম্পিউটার পাওয়ার দরকার। তারপরেও অনেকেই এই কথা জিজ্ঞেস করেন যে তাদের রাস্পবেরি পাই বা বাসার কম্পিউটার দিয়ে বিটকয়েন মাইন করা যাবে কিনা।

আসলে বলতে গেলে যেকোনো কম্পিউটার দিয়েই করা সম্ভব। কিন্তু এতে আপনার যে পরিমান বিদ্যুৎ খরচ হবে তার লাখ ভাগের ১ ভাগও আপনি বিটকয়েন দিয়ে উঠাতে পারবেন না। তাই এখন যাদের আগের থেকেই অনেক বড় বিটকয়েন মাইনিং ফার্ম ছিল শুধু তারাই বিটকয়েন মাইন করে। বাকিরা অন্য ভার্চুয়াল কারেন্সি মাইন করে।

আশা করি আপনি মাইনিং এর ব্যাপারটি বুঝতে পেরেছেন। বিটকয়েন মাইনিং এর বেপারে আরো জানতে এবং কিভাবে বিটকয়েন কাজ করে সে সম্পর্কে বুঝতে নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেন।

আমার টিউন গুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আমার টিউন বেশি বেশি জোসস করুন

আমার টিউন গুলো আপনার ‘টিউন স্ক্রিন’ নিয়মিত পেতে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন। আমার টিউন গুলো সবার কাছে ছড়িতে দিতে অবশ্যই আমার টিউন গুলো বিভিন্ন সৌশল মিডিয়াতে বেশি বেশি শেয়ার করুন

আমার টিউন সম্পর্কে আপনার যে কোন মতামত, পরামর্শ ও আলোচনা করতে অবশ্যই আমার টিউনে টিউমেন্ট করুন

আমার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য ‘টেকটিউনস ম্যাসেঞ্জারে’ আমাকে ম্যাসেজ করুন। আমার সকল টিউন পেতে ভিজিট করুন আমার ‘টিউনার পেইজ’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *