সাবেক সেনা কর্মকর্তার সন্ধান চান স্ত্রী


সাবেক সেনা কর্মকর্তা হাসিনুর রহমানকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে তার পরিবার। বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব) কার্যালয়ে গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই আকুতি জানান নিখোঁজ হাসিনুরের স্ত্রী শামিমা আক্তার।

সংবাদ সম্মেলনে শামিমা বলেন, দেশের জন্য আমরণ সময় দেন সেনা কর্মকর্তারা। লড়াই করেন দেশের স্বাধীনতা আর সার্বভৌমত্ব অক্ষুণœ রাখতে। দেশের জন্য লড়াই করে বীরপ্রতীক খেতাব পেয়েছেন হাসিনুর রহমান। সেই অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্নেল হাসিনুর রহমানকে বাসার কাছ থেকে কে বা কারা তুলে নিয়ে গেছে। দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তার সন্ধান দিতে পারছে না। স্বামীর সন্ধান না মেলায় আমি অসহায়। দ্বারে দ্বারে ঘুরছি। নিরুপায় হয়ে স্বামীকে উদ্ধারের জন্যে স্ত্রী হিসেবে দেশের ও সেনাবাহিনীর অভিভাবক প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

শামিমা আক্তার আরও বলেন, আমার স্বামী কোনো দোষ করেনি, তিনি একজন দেশপ্রেমিক সাধারণ মানুষ। স্বজন হারানোর বেদনা প্রধানমন্ত্রী বুঝবেন, তাই ওনার কাছে আমার দাবিÑ আমার স্বামীকে খুঁজে বের করার ব্যবস্থা করবেন।

গত ৮ আগস্ট রাত ১০টার দিকে মিরপুরের পল্লবীর ডিওএইচএসের বাসার সামনে থেকে ডিবি পুলিশের জ্যাকেট পরা কয়েকজন লোক হাসিনুর রহমানকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। বিষয়টি উল্লেখ করে গত ৯ আগস্ট পল্লবী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি। সংবাদ সম্মলনে শামিমা আক্তারের ভাই ওয়াখিল, ডা. এহতেশামসহ বেশ কয়েকজন নিকটাত্মীয় উপস্থিত ছিলেন।

হাসিনুর রহমান একসময় র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব ৭-এর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ ছাড়া বিজিবিতেও বেশ কিছুদিন দায়িত্ব পালন করেন। সেনাবাহিনীতে চাকরির সময় রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় দ-িত হয়ে পাঁচ বছরের জেল খেটে ২০১৪ সালে মুক্তি পান তিনি।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *