১ মিটের ভিডিও বানিয়ে জিতে নিন পুরস্কার Youtuber দের জন্য সুখবর বিস্তারিত দেখে নিন | Techtunes


প্রথমে আমার সালাম নিবেন (আশাকরি সবাই ভালো আছেন আপনাদের দোয়াই আমিও ভালো আছি। বেশি কথা না বলে এখন কাজের কথাই আসি।

আজকে আপনাদের একটি ওয়েবসাইট এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যেখানে ভিডিও আপলোড করে জিতে নিতে পারেন পুরস্কার। যারা ভিডিও আপলোড করতে চান তারা ১৭ নভেম্বর ২০১৮, রাত ১২টা এর মধ্যে আপলোড করুন।

সাইটের লিংকঃ ক্লিক করুন এখানে।

কিভাবে অ্যাকাউন্ট করবেন দেখে নিনঃ

http://www.techtunes.com.bd/

ভিডিও আপলোড করুন ক্লিক করুন।

ক্লিক করার পর নিচের মত পেজ আসবে।

http://www.techtunes.com.bd/

এই পেজে আপনার নাম, ইউটিউব অ্যাকাউন্ট খুলার ইমেইল, ফোন নাম্বার, জন্ম তারিখ, ঠিকানা, যে ভিডিও আপলোড করবেন তার নাম, Browse এ ক্লিক করে ভিডিও সিলেক্ট করুন। এখন সাবমিট ক্লিক করেন হয়ে গেল আপনার ভিডিও আপলোড করা।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ ও ভিডিও জমা দেয়ার নিয়মাবলি

যোগ্যতা:
যেকোনো বয়সী বাংলাদেশি নাগরিক এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। ভিডিও’র বিষয়বস্তু বাংলাদেশের সাথে সম্পর্কিত হতে হবে। ভিডিও’র ভাষা হবে বাংলা। ইংরেজি তে টাইটেল / শিরোনাম / ভিডিও ফুটেজের উপরে ইংরেজি তে টাইটেল হিশেবে কোন লেখা থাকতে পারে। কিন্তু ধারাবর্ণনায় বা অডিও তে অন্য ভাষা ব্যবহার করা হলে বাংলা সাবটাইটেল যোগ করতে হবে। একজন প্রতিযোগী চাইলে সংলাপ ছাড়াও ভিডিও জমা দিতে পারবেন। তবে সেটা প্রতিযোগিতার বিষয়বস্তুর সাথে মিল থাকতে হবে। একক, দলীয়ভাবে অথবা ক্লাব বা সংগঠনগতভাবেও ভিডিও জমা দেয়া যাবে। একজন প্রতিযোগী একাধিক ভিডিও জমা দিতে পারবেন, এক্ষেত্রে ভিডিও’র বিষয়বস্তুর ভিন্ন হতে হবে।

বিষয়বস্তু:
ভিডিও’র গল্পে পজিটিভ বাংলাদেশকে তুলে ধরতে হবে। গল্পের বিষয়বস্তু হিসেবে যেকোনো ধরনের ইতিবাচক গল্প, ঘটনা, উদ্যোগ, উদ্ভাবন, যা বাংলাদেশের মানুষের জীবনে ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে, সেগুলো নিয়ে ভিডিও বানানো যাবে। মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাসকে উপজীব্য করেও প্রতিযোগীরা ভিডিও বানাতে পারবেন। বাংলাদেশের যেকোনো জায়গা, যেকোনো জাতিগোষ্ঠী, জনগোষ্ঠীর জীবনযাপন, আচার-প্রথার উপর ভিত্তি করেও একজন প্রতিযোগী ভিডিও বানাতে পারবেন, তবে সেখানে অবশ্যই ইতিবাচক দিকগুলো তুলে ধরতে হবে।

স্বত্বাধিকার:
আয়োজক কর্তৃপক্ষ ১ মিনিটে তোমার ফ্রেমে ভালোবাসার বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় প্রাপ্ত সকল ভিডিও দেশে এবং দেশের বাইরে অলাভজনক উদ্যোগসমূহে প্রদর্শন করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। তবে বাণিজ্যিকভাবে প্রদর্শন করলে আয়োজক কর্তৃপক্ষ ভিডিও নির্মাতার সাথে আয় (রেভিনিউ) ভাগ করে নিবেন।

আইনগত দিক:
কপিরাইট: প্রতিযোগিতায় জমা দেয়া ভিডিওতে কোনো ধরনের কপিরাইট আইন লংঘন করা যাবে না। ভিডিওতে যদি অন্য কারো মিউজিক বা ভিজুয়াল অথবা অন্য কোনো ধরনের কনটেন্ট ব্যবহার করা হয়, তা অবশ্যই মূল কনটেন্ট মালিকের লিখিত অনুমতি নিয়ে ব্যবহার করতে হবে। অন্যথায়, ভিডিও ডিসকোয়ালিফাই বলে গণ্য হবে। তাছাড়া পরবর্তিতে এ বিষয়ে আইনি সমস্যায় পড়লে যাবতীয় দায়িত্ব প্রতিযোগীর উপর বর্তাবে। ভিডিওতে ‘ফ্রি টু ইউজ’ কনটেন্ট ব্যবহার করলে, ক্রেডিট লাইনে কনটেন্ট মালিকের নাম উল্লেখ্য করতে হবে।

প্রতিযোগীরা ভালোবাসার বাংলাদেশ ক্যাম্পেইনের জন্য জমা দেয়া ভিডিও’র ব্যাকগ্রাউন্ড স্টোরি, ইনসাইট এবং অভিজ্ঞতা কর্তৃপক্ষের সাথে শেয়ার করবেন। তবে কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি ছাড়া কোনো প্রতিযোগী প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক অথবা ডিজিটাল মিডিয়াতে প্রতিযোগিতা সংশ্লিস্ট বিষয় নিয়ে কথা বলতে পারবেন না। তাছাড়া কোনো প্রতিযোগী সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রতিযোগিতার সাথে সংশ্লিস্ট বিচারকদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য, প্রতিযোগিতা নিয়ে কোনো ধরনের গুজব, বিভ্রান্তি অথবা প্রতিযোগিতার গোপনীয়তা ভঙ্গ হয় এমন কাজ করতে পারবেন না।

  • একজনের সাবমিট করা ভিডিও’র সাথে আরেকজনের ভিডিও পুরোপুরি মিলে গেলে, যিনি প্রথমে সাবমিট করেছেন, তার ভিডিও গ্রহণ করা হবে। অথবা কোনো প্লাটফর্মে যিনি সবার আগে ভিডিও’র মালিকানা দাবি করেছেন, সেক্ষেত্রে তার সাবমিশন গ্রহণ করা হবে।
  • পুরস্কার গ্রহণের সময় বিজয়ীকে জাতীয় পরিচয়পত্র / রেজিস্ট্রেশন কপি / ট্রেড মার্ক লাইসেন্স দেখাতে হবে।
  • আয়োজক কর্তৃপক্ষ সাবমিট করা ভিডিও গ্রহণ বা বাতিল-সহ যেকোনো সময় প্রতিযোগিতার নিয়ম পরিবর্তন বা বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করেন।

আরো জানতে ফোন করুন এই নম্বরে- ০৮০০০৮৮৮০০০ (টোল ফ্রি)

ভিডিও আপলোডের ধাপ ও নিয়মাবলি:

  • http://www.bhalobasharbangladesh.com ওয়েবসাইটে ১ মিনিটের ভিডিও সাবমিট করতে হবে।
  • সকল বাধ্যতামূলক ও প্রয়োজনীয় তথ্যাবলি সংশ্লিস্ট ফাঁকা ঘরগুলোতে দিয়ে পূরণ করতে হবে, এবং প্রতিযোগিতার নিয়ম-নীতির প্রতি সম্মতি জানিয়ে ভিডিও আপলোড করতে হবে।
  • সফলভাবে ভিডিও সাবমিট হলে ইমেইল/এসএমএস নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানানো হবে।
  • ভিডিও প্রকাশ করার আগে আয়োজক কর্তৃপক্ষ জমাকৃত ভিডিওগুলো প্রতিযোগিতার নিয়মাবলি অনুযায়ী নির্মিত হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা সাপেক্ষে প্রচারের সিদ্ধান্ত নিবেন। ভিডিও প্রকাশ হলে আবার ইমেইল/এসএমএস নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানানো হবে।

আরো জানতে ফোন করুন এই নম্বরে- ০৮০০০৮৮৮০০০ (টোল ফ্রি)

১ মিনিটের ভিডিও’র তথ্য:
ফাইল ফরম্যাট: চূড়ান্ত ভিডিও MP4 file আউটপুট নিয়ে জমা দিতে হবে। তবে ভিডিও’র জন্য যেকোনো ফরম্যাটে শুটিং করা যাবে। তবে মিনিমাম শুটিং রেজুলেশন 720p হতে হবে। প্রফেশনাল ভিডিও ক্যামেরা, ডিএসএলআর অথবা মোবাইল ফোন দিয়েও ভিডিও করা যাবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে, সেটা যেন প্রতিযোগিতার বেসিক মানদণ্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।

আউটপুট রেজুলেশন:
সর্বনিম্ন: 720p
সর্বোচ্চ: 1080i/50

ফাইল সাইজ:
সর্বনিম্ন: 100MB
সর্বোচ্চ: 450MB

বিস্তারিত দেখতে http://www.bhalobasharbangladesh.com ওয়েবসাইট ভিজিট করুন। যেকোনো সাহায্যের জন্য কল করুন এই নম্বরে – ০৮০০০৮৮৮০০০ (টোল ফ্রী)

ব্যাপ্তি: ভিডিও’র দৈর্ঘ্য ১ মিনিটের বেশি হওয়া যাবে না। ভিডিও শুরু এবং শেষের ক্রেডিট থাকা বাধ্যতামূলক নয়। কেউ যদি ক্রেডিট লাইন দেন, তবে ১ মিনিটের মধ্যেই হতে হবে।

ভিডিও সাবমিশনের শেষ সময়:
১৭ নভেম্বর ২০১৮, রাত ১২টা। নির্ধারিত শেষ সময়ের আগে যেকোনো সময় ভিডিও জমা দেয়া যাবে।

ভিডিও বাছাই ও পুরস্কার:
ভালোবাসার বাংলাদেশ ক্যাম্পেইন ২০ দিন ধরে চলবে।

প্রতিদিন সকালে আগের দিনের জমা দেয়া ১ মিনিটের ভিডিওগুলো একটি এডিটরিয়াল প্যানেলের অনুমোদন সাপেক্ষে সবাইকে দেখানোর জন্য এই ক্যাম্পেইনের ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়া-সহ বিভিন্ন ডিজিটাল প্লাটফর্মে পাবলিশ করা হবে।

আয়োজক কর্তৃপক্ষ প্রতিযোগিতার সাথে সামঞ্জস্য রাখার উদ্দেশ্যে ভিডিও’র শিরোনাম (টাইটেল) পরিবর্তন করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। এক্ষেত্রে ভিডিও নির্মাতার কোনো ধরনের আপত্তি গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হবে না।

পুরস্কারের প্রথম ধাপ: আপলোডকৃত ভিডিওর মধ্য থেকে বিচারকদের মতামতের ভিত্তিতে প্রতিদিনের সেরা ৩ ভিডিও নির্বাচন করা হবে। প্রতিদিনের সেরা ৩ ভিডিও’র ফলাফল প্রতিদিন রাত ১০.৫৪ মিনিটে একযোগে CHANNEL 24, Ekattor, Maasranga এবং Somoy টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার করা হবে। প্রতিযোগিতার বিচারকগণ এই সেরা ৩টি ভিডিও থেকে প্রতিদিন ১ম, ২য় এবং ৩য় স্থান বিজয়ী ভিডিও নির্ধারণ করবেন। প্রতিদিনের ১ম স্থান বিজয়ী ভিডিও নির্মাতা পুরস্কার হিসেবে ১টি iPhone 10x পাবেন। এর বাইরে ১ম, ২য় এবং ৩য় স্থান বিজয়ী ভিডিও নির্মাতা বিশেষ ডিরেক্টরস জ্যাকেট পুরস্কার হিসেবে পাবেন।

পুরস্কারের দ্বিতীয় ধাপ: ২০ দিনের সেরা ৬০ ভিডিও থেকে বিচারকবৃন্দ সেরা ১০ ভিডিও নির্বাচন করবেন। সেরা ১০ ভিডিও’র নির্মাতা প্রত্যেকে ১ টি করে ল্যাপটপ (ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার-সহ) পুরস্কার হিসেবে পাবেন। সেরা ১০ ভিডিও বিস্তারিত, পরিশীলিত ও শৈল্পিকভাবে উপস্থাপনের জন্য, বিশিষ্ট নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী’র তত্ত্বাবধায়নে, মূল নির্মাতাকে সাথে নিয়ে পুনরায় নির্মাণ করা হবে। অর্থাৎ সেরা ১০ এর নির্মাতারা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী’র সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাবেন।

পুরস্কারের তৃতীয় ধাপ: ভালোবাসার বাংলাদেশ কাম্পেইনের দ্বিতীয় ধাপে পুনরায় নির্মিত ভিডিওগুলো সাধারণের জন্য এই ক্যাম্পেইনের ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়া-সহ বিভিন্ন ডিজিটাল প্লাটফর্মে পাবলিশ করা হবে। এই ভিডিওগুলো নিয়ে দর্শকদের প্রতিক্রিয়া এবং বিচারকদের মতামতের ভিত্তিতে সেরা ৩ ভিডিও / বিষয় নির্বাচিত হবে। সেরা ৩ বিষয়ের উপরে নির্মিত ভিডিওগুলোর প্রথম নির্মাতারা প্রতিজন পাবেন ১০ লক্ষ টাকা।

ভালোবাসার বাংলাদেশ ক্যাম্পেইনের জুরি বোর্ডের সদস্যরা হলেন খ্যাতিমান সিনেমা নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, অমিতাভ রেজা চৌধুরী, ক্যাথরিন মাসুদ এবং বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। প্রতিযোগিতায় জুরিদের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। কোনো প্রতিযোগী বিচারকদের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন না।

বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী’র তত্ত্বাবধায়নে ভালোবাসার বাংলাদেশ ক্যাম্পেইনের সেরা ৩ বিজয়ী ভিডিও অবলম্বনে ৩টি ফিল্ম নির্মিত হবে। বাংলাদেশের বিজয়ের ৪৭ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে এই ফিল্মগুলো প্রচারিত হবে।

উদ্দেশ্য:
বিজয়ের ৪৭ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে সারাদেশের আপামর মানুষের চোখে বাংলাদেশ কেমন, তা দেখার আয়োজন ‘ভালোবাসার বাংলাদেশ’। প্রতিযোগিতামূলক এই আয়োজনের মাধ্যমে প্রতিযোগীরা ১ মিনিটে তুলে ধরবেন তার দেখা বাংলাদেশকে। আমাদের বিশ্বাস, এর মধ্যে দিয়ে আমরা আমাদের মাতৃভুমির রূপ-প্রকৃতি, মানুষ-সংস্কৃতি, সাহসী অতীত, বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার গল্পগুলো জানতে পারবো।

আজ এখানেই শেষ করলাম। ধন্যবাদ সবাইকে।

যেকোন প্রয়জনে যোগাযোগ করুন।

ফেচবুকঃ ক্লিক করুন।

জিবনপাতাঃ ক্লিক করুন।

সময় হলে আমার সাইট ঘুরে আসুনঃ http://www.tricklikhun.com

ভুল হলে ক্ষমা করে দিবেন।

 

 


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *